নিউজটি পড়া হয়েছে 21

নরসিংদীর শিবপুরে এক কিশোরীকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: মোবাইল ফোন চুরির ঘটনায় নরসিংদীর শিবপুরে এক কিশোরীকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে। খনকুট প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ওই ছাত্রীর নাম আজিজা খাতুন। তার চাচি কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়েছে বলে দাবি করেছে আজিজার পরিবার।

শুক্রবার রাত ৮টা দিকে বাড়ির পাশে দাঁড়িয়ে ছিলো আজিজা খাতুন। হঠাৎ তার চাচি বিউটি বেগম ৩-৪ জন সহযোগী নিয়ে তার হাত-মুখ বেঁধে ফেলে। পরে পাশের এক বাগানে নিয়ে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ ওঠেছে।

পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে নরসিংদী সদর হাসপাতাল নেয়। অবস্থার অবনতি হলে রাতেই আনা হয় ঢাকা মেডিকেলে। শনিবার সকালে বার্ণ ইউনিটে মারা যায় আজিজা।

এক সপ্তাহ আগে আজিজার চাচির মোবাইল ফোন হারিয়ে যায়। এরপর থেকে আজিজাকে সন্দেহ করে নানা ভাবে হুমকি দিয়ে আসছিলেন তিনি।

আজিজার শ্বাসনালীসহ শরীরের ৯৮ শতাংশ পুড়ে গেছে বলে জানান চিকিৎসকরা। ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করেছে পুলিশ। অভিযুক্তদের ধরার চেষ্টা চলছে।

ঘটনার পর থেকেই আজিজার চাচি বিউটি বেগমসহ সবাই পলাতক রয়েছেন।

ফেসবুক মন্তব্য
Share Button
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •