নিউজটি পড়া হয়েছে 98

মায়ানমার সেনাপ্রধানকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর টেলিফোন : দ্রুত রোহিঙ্গা সংকট নিরসনের তাগিদ

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যের সহিংসতার দ্রুত অবসানে সেনা প্রধান মিন অং হ্লাংকে তাগিদ দিয়েছেন। টিলারসন বৃহস্পতিবার টেলিফোনে মায়ানমার সেনাবাহিনী প্রধানের সঙ্গে আলাপ করে ‘রাখাইনে জাতি গত নিধন’ বন্ধের আহবান জানান।

উল্লেখ্য, গত আগস্টে রাখাইনে মায়ানমার নিরাপত্তা বাহিনীর উপর হামলার অজুহাত দেখিয়ে সে দেশের সেনাবাহিনী প্রধানের নির্দেশে জাতিগত সংখ্যালঘু মুসলমানদের নির্বিচারে হত্যা, নারীদের ধর্ষনও বলপ্রয়োগের মাধ্যমে বাস্তুচ্যুত করলে ৬ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা মুসলমান সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র হিথার নয়ের্ট এক বিবৃতিতে বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী টেলিফোনে মিন অং-এর কাছে ‘রাখাইনে অব্যাহত মানবিক সংকট ও নৃশংসতার খবরে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

তিনি আরো বলেন, ‘পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাখাইন রাজ্যে সহিংসতা বন্ধে সরকারকে সহযোগিতা করতে এবং এই সংকট চলাকালে যারা নিজ দেশ থেকে বিতাড়িত হয়েছেন, বিশেষ করে লাখ লাখ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে নিরাপদে দেশে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য মায়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

গত সপ্তাহে মার্কিন পররাষ্টমন্ত্রী টিলারসন বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকটের জন্য মায়ানমারের সামরিক নের্তৃত্বকে দায়ী করছে। তিনি হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, বিশ্ব মায়ানমারে ঘটে যাওয়া নৃশংসতায় নীরব দর্শক হয়ে বসে থাকবে-এমনটা ভাবার কোন কারণ নেই।

তিনি আরো বলেন, সামরিক বাহিনীকে অবশ্যই শৃঙ্খলিত ও সংযত হতে হবে। পররাষ্ট্র দপ্তরের বিবৃতিতে বলা হয়েছে পররাষ্ট্রমন্ত্রী টিলারসন মানবাধিকার সংগঠনগুলোর আনিত অভিযোগের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে জাতিসংঘের নিরপেক্ষ তদন্ত কমিশনকে সহযোগিতা করার জন্য মায়ানমার সেনাবাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন। বাসস

ফেসবুক মন্তব্য