নিউজটি পড়া হয়েছে 26

কাতালোনিয়ার স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনের ঘোষণা।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: স্পেন থেকে স্বাধীন হওয়ার পক্ষে রায় দিয়েছে স্বায়ত্তশাসিত কাতালোনিয়ার আঞ্চলিক পার্লামেন্ট। কেন্দ্রের শাসন চালুর হুমকির মধ্যেই স্পেন থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনের ঘোষণা দিলো তারা। রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এ নিয়ে শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিতে কাতালান পার্লামেন্টের ১৩৫ সদস্যের মধ্যে স্বাধীনতার পক্ষে ভোট দেন ৭০ জন। বিপক্ষে ভোট পড়ে ১০টি। আর দুইজন খালি ব্যালট জমা দেন।  তবে ভোটাভুটির আগে বিরোধী দল পার্লামেন্ট থেকে ওয়াক আউট করেন।

সোশালিস্ট পার্টি, পিপলস পার্টি ও সিউদাদানোসের পার্লামেন্ট সদস্যরা ভোট বয়কট করে অধিবেশন থেকে বেরিয়ে যায়। এর আগে গণভোটের ‘রায়’ মেনে গত ১০ অক্টোবরই স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রে সই করেন অঞ্চলিক নেতারা। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে তা কার্যকর না করে আলোচনার প্রস্তাব দেন কাতালান প্রেসিডেন্ট কার্লোস পুজদেমন।

স্পেনের কাছ থেকে স্বাধীনতার জন্য গত ১ অক্টোবর গণভোট আয়োজন করে কাতালোনিয়া। গণভোটে ৯০ শতাংশ মানুষ কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার পক্ষে রায় দিয়েছে। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী চলতি সপ্তাহে কাতালোনিয়ারা নেতাদের স্বাধীনতার ঘোষণা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু স্পেনের কেন্দ্রীয় সরকারের চাপে পুজদেমন সরাসরি স্বাধীনতার ঘোষণা থেকে সরে এসে আলোচনার আহ্বান জানান। তবে স্বাধীনতাকামীদের এ গণভোটকে স্পেনের সরকার বেআইনি ঘোষণা করে।

শুক্রবার কাতালোনিয়ার পার্লামেন্টে যে প্রস্তাবটির প্রশ্নে ভোটাভুটি হয়েছে সেখানে লেখা ছিল: ‘আমরা কাতালোনিয়া প্রজাতন্ত্রকে একটি স্বাধীন, সার্বভৌম, গণতান্ত্রিক ও সামাজিক রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলব। এদিকে, স্বাধীনতার প্রস্তাবটি পার্লামেন্টে পাস হওয়ার পর পরেই স্বাধীনতাপন্থীরা উল্লাসে ফেটে পড়েন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, স্প্যানিশ সরকার যখন কাতালোনিয়ার উপর সরাসরি কেন্দ্রীয় শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য তৎপরতা চালাচ্ছে তখনই আঞ্চলিক পার্লামেন্ট এ রায় দিলো। তবে মাদ্রিদে বিরাজ করছে ভিন্ন পরিস্থিতি। শুক্রবার স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাজয় স্প্যানিশ সিনেটে বক্তব্য দিতে গিয়ে কাতালোনিয়ায় সরাসরি কেন্দ্রীয় শাসন প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব অনুমোদনের জন্য সিনেটরদের প্রতি আহ্বান জানান। কেবল তাই নয়, কাতালোনিয়ার নেতা কার্লেস পুজদেমন, তার ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং কাতালোনিয়ার সকল আঞ্চলিক মন্ত্রীদেরকে অপসারিত করতে চান বলেও জানান তিনি।

ফেসবুক মন্তব্য
Share Button
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •