ইসির সাথে সংলাপ : শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন, সেনা মোতায়েন না করাসহ ১১ দফা প্রস্তাব দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন, সেনা মোতায়েন না করা ও ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণসহ ১১ দফা প্রস্তাব দিয়েছে আওয়ামী লীগ। সংলাপ শেষে সাংবাদিকদের সেসব কথাই জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আজ (বুধবার) সকাল ১১টায় থেকে শুরু হয়ে প্রায় দু’ঘণ্টা সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। সংলাপ প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন: আমরা আগামী নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ১১ দফা প্রস্তাব নির্বাচন কমিশনের কাছে উপস্থাপন করেছি। আমাদের প্রস্তাবগুলো দেখার পরে কমিশন বলেছেন,এটা যেনো কোনো রাজনৈতিক দলের প্রস্তাব নয়, সিইসিরই কথা।

সংলাপ শুরু করার আগে নির্বাচন কমিশনার সূচনা বক্তব্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। অতীতেও আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দেশের অধিকাংশ সফল্য অর্জিত হয়েছে।

বর্তমান সরকারের সময়ে নির্বাচন কমিশন আগের যেকোনো সময়ের থেকে বেশি স্বাধীনভাবে কাজ করছে। এসময় তিনি নির্বাচন কমিশনের বিভিন্ন স্বাধীনতার কথা তুলে ধরে বলেন: নির্বাচন কমিশনের এখন যে সমস্ত আইন তার অধিকাংশই এসেছে আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে।

ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ প্রতিনিধি দলে ছিলেন: আমির হোসেন আমু এমপি, তোফায়েল আহমেদ এমপি, মতিয়া চৌধুরী এমপি, শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি, মোহাম্মদ নাসিম এমপি, এইচ টি ইমাম, ড. মসিউর রহমান, ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি, লে. কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি, রমেশ চন্দ্র সেন এমপি, অ্যাম্বাসেডর জমির, মো. রশিদুল আলম. মাহবুবউল-আলম হানিফ এমপি, ডা. দীপু মণি এমপি, জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি, আব্দুর রহমান এমপি, এইচ এন আশিকুর রহমান এমপি, ড. হাছান মাহমুদ এমপি, ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ ও অ্যাডভোকেট এবিএম রিয়াজুল কবির কাওছার।

তবে স্ত্রীর অসুস্থার কারণে দলটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম দেশের বাইরে থাকায় তিনি অংশগ্রহণ করেন নি।

গত ৩১ জুলাই সুশীল সমাজের সঙ্গে বসার মধ্যদিয়ে সংলাপ শুরু করে নির্বাচন কমিশন। এরপর, ১৬ ও ১৭ আগস্ট নির্বাচন কমিশন আলোচনার জন্য আমন্ত্রণ জানায় গণমাধ্যমের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের। সবশেষ ২৪ আগস্ট রাজনৈতিক দল গুলোর সঙ্গে সংলাপ শুরু করে নির্বাচন কমিশন।

সূত্র: চ্যানেল আই

Facebook Comments