নিউজটি পড়া হয়েছে 309

সিলেটের থীম সং লিখলেন জাহাঙ্গীর আলম।

ফাহাদ আহমেদ : বাউল গানের চারণভূমি খ্যাত সুনামগঞ্জের সন্তান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। ছাতক থানার দোলার বাজার ইউনিয়নের ভাওয়াল গ্রামে জন্ম। পিতা মৃত মোঃ তবারক মিয়া এবং মাতা রাজিয়া বেগম। ৮ ভাই বোনের মধ্যে তিনি ৩য়। ছোট বেলা থেকেই বই পড়া এবং লেখালেখি করেন তিনি। গানের প্রতি ভালবাসা থেকে একের পর এক লিখে যাচ্ছেন গান। এরই মধ্যে এনটিভিতে তার লেখা গান প্রচার হয়েছে । ক্লোজাআপ ওয়ান-২০১২ শীর্ষ ১০ তারকা নিয়ে ক্লোজাআপ “নব আলোকের গান”অনুষ্টানে মৌলিক গান লিখে তিনি সারা দেশ থেকে নেওয়া ১০জন গীতিকারের একজন নির্বাচিত হন। গানটি গেয়েছেন বর্ণালী বিশ্বাস সান্তা। এবং দেশের নতুন উদীয়মান গীতিকারের তালিকায় স্থান পেয়েছে। এছাড়াও তিনি হামদনাত, আধ্যাত্মিক, প্রেম-বিরহের বিভিন্ন রকমারি গানের গীতিকারও বটে।
তারই ধারাবাহিতায় এবার সিলেটকে নিয়ে থীম সং লিখলেন এই গীতিকার। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি সিলেটে, দেশ-বিদেশের ভ্রমণ পিপাসু পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে গানে গানে আমন্ত্রণ জানালেন সিলেট ভ্রমণের জন্য।
গানটির সুর করেছেন সিলেটের জনপ্রিয় বংশীবাদক ও সুরকার কুতুব উদ্দিন, কন্ঠ দিয়েছেন জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী প্রদ্বীপ মল্লিক। গানটির গীতিকার জাহাঙ্গীর আলম আশা ব্যক্ত করেন-‘সিলেটের আঞ্চলিক ভাষার লেখা তার এ গানটি সবার হৃদয়ে স্থান করে নেবে।
 
 ও দেশর ভাই-বইনেরা সিলটেতে আইয়ো
চা,আনারস,সাতকরা আর কমলা লেবু খাইয়ো ।।
 
দেইখা যাইয়ো শাহজালালের বিজয় গাঁথা মাটি
শাহপরানের কেরামতির কথা একদম খাঁটি
আল্লাহু আল্লাহু রবে কবুতর উড়াইয়ো ।।
 
জাফলংয়েতে গিয়া তোমরা খাইয়ো খাইসা পান
পাথর জলের মিশামিশি দেখলে জুড়ায় প্রাণ
মন চাইলে মনের রঙ্গে বাড়কি নৌকা বাইয়ো ।।
 
হাসন,দুর্বিন,রাধারমণ একই সুতায় গাঁথা
মনের মাঝে রাইখো তুমি টাঙ্গুয়ার হাওরের কথা
পাখির সুরে সুর মিলাইয়া করিমের গান গাইয়ো।।
 
পাহাড় থাইকা ঝরনার পানি পড়ছে অবিরত
মাধবকুণ্ডের গল্প লোকে বলছে কতশত
গরম লাগলে ঠান্ডা পানিত গা খানা ভিজাইয়ো ।।
 
জাহাঙ্গীরের মনের আশা আরও দেখতে চায়
বিছনাকান্দি,রাতারগুল দেখলে চোখ জুড়ায়
আলী আমজদের ঘড়ি ক্বীন ব্রীজ দেখিও ।।
সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম/২২আগস্ট২০১৭
ফেসবুক মন্তব্য
xxx