বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করা না হলে দেশ অনেক আগেই এগিয়ে যেত: অর্থ-প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান

বিপ্লব দেব, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ)প্রতিনিধি:- সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস জগন্নাথপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা আওয়ামী লীগ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন পৃথকভাবে কর্মসূচীটি পালন করেছেন। জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আব্দুস সামাদ আজাদ অডিটরিয়ামে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বাঙ্গালী জাতির আকাক্সক্ষার প্রতীক। বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে  হত্যা করা না হলে বাংলাদেশ অনেক আগেই বিশ্বের অন্যতম একটি উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হত বলে মন্তব্য করেন। বিভীষিকা ময় ইতিহাসের আজ এক ভয়ংকর দিন উল্লেখ করে তিনি বলেন বঙ্গবন্ধুকে স্মরন করার মধ্য দিয়ে আমরা আত্ম জিজ্ঞাসায় উপনীত হই। প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী রাখতে দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাওয়ার আহবান জানিয়েছে প্রতিমন্ত্রী। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আকমল হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি সিদ্দিক আহমদ, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজুর পরিচালায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জগন্নাথপুর
উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি নুরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাজী আব্দুল কাইয়ুম মোশাহিদ, আব্দুল মালিক, আনহার মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক সুজিত কুমার রায়, তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, প্রচার সম্পাদক আব্দুল জব্বার, দপ্তর সম্পাদক ছাদিকুর রহমান ছাদেক, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান মুজিব, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল কাদির, আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট মির্জা আবু তাহের মোহন, সহ-প্রচার সম্পাদক ফিরোজ আলী, সহ-দপ্তর সম্পাদক মাছুম আহমদ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. আব্দুল আহাদ, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন ভুঁইয়া, যুগ্ম সম্পাদক জেলা পরিষদ সদস্য মাহতাবুল হাসান সমুজ, সাংগঠনিক সম্পাদক শশীকান্ত গোপ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাংবাদিক আব্দুল হাই, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আফছর উদ্দিন ভুঁইয়া, উপজেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি নুরুল হক, কলকলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফখরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক দিপাল কান্তি দে দ্বীপাল, পাটলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জমশেদ মিয়া তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক মনু মোহাম্মদ মতছির, রাণীগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী সুন্দর আলী, সাধারণ সম্পাদক ডা. ছদরুল ইসলাম, পাইলগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আপ্তাব উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল তাহিদ, মীরপুর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জমির উদ্দিন, মীরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বাবুল মিয়া, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন, সহ- সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাহবুব, এম ফজরুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম রিপন, পৌর কাউন্সিলার দিলোয়ার হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর কাউন্সিলার গিয়াস উদ্দিন মুন্না, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাফরোজ ইসলাম মুন্না, সাধারন সম্পাদক রুমেন আহমদ, সহ-সভাপতি সায়মন হোসেন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক তোহা চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ আহমদ, প্রচার সম্পাদক সজিব রায় দুর্জয়, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা হাসান আদিল, মাছুন আহমদ, রনি আহমদ, জুনেদ আহমদ, রনি রাজ, মতিউর রহমান, নিজাম উদ্দিন, রিপন আহমদ, রায়হান, সুমেল আহমদ, তারেক আহমদ, সুমন আহমদ, লিটন, ছাদেক, শাহরিয়ান, রায়হান, আল-রাহি প্রমূখ। পরে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা নিজাম উদ্দিন জালালী। দিবসের শুরুতে সকালে দলীয় কার্যালয়ে দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিককৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন ও শোক র‌্যালী অনুষ্টিত হয়।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx