সিলেটে ছাত্রলীগের ২ কর্মীকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় জালালাবাদ কলেজের দুই শিক্ষকসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: সিলেটের সোবহানীঘাটে ছাত্রলীগের ২ কর্মীকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করার ঘটনায় জালালাবাদ কলেজের দুই শিক্ষকসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগে কোতোয়ালি থানায় মামলা হয়েছে।

গুরুতর আহত ছাত্রলীগকর্মী আবুল কালাম আফিফের বড় ভাই আবুল কালাম আফাজ বাদী হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ৩-৪ জনকে আসামি করে কোতোয়ালি থানায় মামলা (নং-১৩) দায়ের করেন। হামলাকারীরা সবাই শাহপরাণ থানাধীন এলাকার বাসিন্দা।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়- জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা শাহপরাণ থানাধীন শিবগঞ্জ সবুজ এলাকার বিভিন্ন বাসায় বসবাস করে আসছে দীর্ঘদিন থেকে। শুধু বসবাসই নয় ওই এলাকায় গোপনভাবে চলছে তাদের রাজনৈতিক কার্যক্রম। ওই এলাকাকে ঘিরেই এখন পুলিশের অন্যতম টার্গেট।

মামলার এজাহারনামীয় আসামিরা হচ্ছে- জালালাবাদ কলেজের সহকারী শিক্ষক শাহপরাণ থানাধীন নগরীর সবুজবাগ এলাকার আক্কাছ আলী (৪০), একই কলেজের সহকারী শিক্ষক নগরীর শাহজালাল উপশহরের এবাদুর রহমান (৩৫), নগরীর সোনারপাড়া এলাকার আব্দুল ফাত্তাহ (২০), শাহজালাল উপশহরের মাল্টিপ্লান সিটির ৫ম তলার আকিব (২২), একই টাওয়ারের ছাকিব (২০), উপশহরের তাহমিদ (২৪) ও জাবেদ (২১)।

Facebook Comments