বেসরকারি মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয় করণের দাবিতে শাল্লায় বিক্ষোভ সমাবেশ।

হাবিবুর রহমান-হাবিব শাল্লা (সুনামগঞ্জ) থেকেঃ সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলা বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ সমিতির আয়োজনে ০৩আগষ্ট বৃহস্পতিবার উপজেলা শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে শাল্লা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি নিহার রঞ্জন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও গিরীধর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মহানন্দ সূত্র ধরের সঞ্চালনায় বেসরকারি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয় করণের দাবিতে শাল্লায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সমাবেশের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের মৌলভী শিক্ষক মোঃ হোসাইন আহমদ শাহীদী, গীতা পাঠ করেন বলরাম পুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গঙ্গেশ চন্দ্র চৌধুরী।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আরিফ মুহাম্মদ দুলাল, গোবিন্দ চন্দ্র বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মহিপাল দাস মিলটন, মাধ্যমিক শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক সজল চন্দ্র সরকার, আন্দোল কমিটির আহ্বায়ক ও শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মোঃ খাইরুল ইসলাম, সাউদের শ্রী স্কুল এন্ড কলেজের বিএসসি শিক্ষক অলক চক্রবর্তী, শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক সূর্য কান্ত রায়, শ‍্যাম সুন্দর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক জ‍্যোর্তিময় চৌধুরী,সাউদের শ্রী স্কুল এন্ড কলেজের মৌলভী শিক্ষক শরীফ উদ্দিন,মামুদ নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ মামুন মিয়া, বলরাম পুর উচ্চ বিদ্যালয়ের মৌলভী শিক্ষক ফখরুল ইসলাম,চাকুয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের মৌলভী শিক্ষক মোজাম্মেল ইসলাম, গোবিন্দ চন্দ্র বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক শেলী রানী দাস, আছলাম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন,সরলাল উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ মওদুদ ইসলাম,গিরীধর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক প্রীতবাস দাস, গোবিন্দ চন্দ্র বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তাপস দাস।
বক্তাগণ-বেসরকারি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয় করণের দাবিতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে শিক্ষকদের দাবি দাওয়া পূরণের জন্য বিস্তর বক্তব্য রাখেন।
সমাবেশে উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারী গণ উপস্থিত ছিলেন।
ফেসবুক মন্তব্য
xxx