ঢাবি ভিসি নির্বাচনের কার্যক্রম স্থগিত করেছেন সুপ্রিম কোর্ট।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি নির্বাচনে সিনেট সভায় মনোনীত ৩ সদস্যের প্যানেলের কার্যক্রম স্থগিত করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে ওই সিনেট সভার বৈধতা নিয়ে করা রিট ৪ সপ্তাহের মধ্যে নিস্পত্তি করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই রিট নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান ভিসি দায়িত্ব পালন করবেন। সেই সঙ্গে এ বিষয়টি বিচারপতি জিনাত আরার নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে শুনানির জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন তিন বিচারপতির আপিল বেঞ্চ আজ বৃহস্পতিবার এই আদেশ দেন।

আদালতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ছিলেন আব্দুল মতিন খসরু, এ এফ এম মেজবাহ উদ্দিন। আর রিট আবেদনকারীদের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রোকনউদ্দিন মাহমুদ ও মোস্তাফিজুর রহমান।

রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্ধারণ না করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্যানেল মনোয়নের জন্য গত ২৯ জুলাই সিনেটের বিশেষ সভার দিন নির্ধারন করে গত ১৬ জুলাই ঢাবির রেজিস্ট্রার একটি চিঠি দেন।

চিঠিতে বলা হয়, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ, ১৯৭৩ এর ২১(২) ধারার অর্পিত ক্ষমতাবলে উপাচার্য ২৯ জুলাই বিকাল চারটায় সিনেটের বিশেষ সভা আহবান করেছেন। উক্ত বিশেষ সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ ১৯৭৩, ১১(১) ধারা অনুযায়ী চ্যান্সেলর কর্তৃক ভাইস চ্যান্সেলর নিয়োগের জন্য তিনজনের একটি প্যানেল মনোনয়ন করা হবে।

কিন্তু রেজিস্ট্রার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্ধারণ না করে সিনেটের বিশেষ সভা ডাকার ওই চিঠির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্ট একটি রিট করেন ১৫ জন।

রিটকারি ১৫ জন হচ্ছেন অধ্যাপক সাদেকা হালিম, অধ্যাপক একেএম গোলাম রব্বানী, অধ্যাপক হারুনুর রশীদ খান, অধ্যাপক সিতেশ চন্দ্র বাচার, অধ্যাপক সৈয়দ মোহাম্মদ শামসুদ্দিন, অধ্যাপক হুমায়ুন আক্তার, অধ্যাপক মো. আসাদুজ্জামান, অধ্যাপক এমরান কবীর চৌধুরী, অধ্যাপক কে এম সাইফুল আলম খান, সহযোগী অধ্যাপক মো. হুমায়ন কবির, সহকারী অধ্যাপক মো. আব্দুর রহিম, রেজিস্ট্রার্ড গ্র্যাজুয়েট ঢাকার এ কে এম আতিকুর রহমান, ফরিদপুরের আব্দুল জব্বার মিয়া ও বরিশালের আনোয়ার হোসেন।

 

ফেসবুক মন্তব্য
xxx