যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার শত্রু নয় : মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::: যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার শত্রু নয় বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন। সেইসঙ্গে পিয়ংইয়ং-কে শান্তি আলোচনায় বসার প্রস্তাব দেন তিনি। উত্তর কোরিয়ায় সরকার পরিবর্তন কিংবা দুই কোরিয়ার একীকরণের কোনো পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের নেই বলেও জানান টিলারসন। ওদিকে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স কোরীয় উপদ্বীপে সহিংসতা উস্কে দেয়ার জন্য দোষারোপ করেছেন রাশিয়াকে।

হঠাৎ করেই উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে নরম সুরে কথা বলতে শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিকে শান্তি আলোচনায় বসায় প্রস্তাব দিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে তারা এমন সব বিষয়ে আলোচনা করতে চান যা দেশটির নিরাপত্তা এবং অর্থনৈতিক অগ্রগতি নিশ্চিত করবে। মঙ্গলবার উত্তর কোরিয়ার হুমকিকে অগ্রহণযোগ্য উল্লেখ করার পাশাপাশি এ আহ্বান জানান তিনি।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন বলেন, ‘উত্তর কোরিয়া বিষয়ে আবারও আমাদের অবস্থান পরিষ্কার করছি। আমরা তাদের সরকার পরিবর্তন করতে চাই না। তাদের পতনও চাই না। দুই কোরিয়াকে একত্রিত করার কোনো ইচ্ছে আমাদের নেই। কোনো অজুহাতে কোরীয় উপদ্বীপে সেনা মোতায়েনের কোনো চিন্তাও আমাদের নেই। আমরা উত্তর কোরিয়াকে বলতে চাই, আমরা তোমাদের জন্য হুমকি নই। কিন্তু তোমরা আমাদেরকে হুমকি দিয়ে চলেছ। এটা অগ্রহণযোগ্য। আমরা তাদের সঙ্গে আলোচনা করতে চাই।

উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে আলাপ শেষে এনবিসি টেলিভিশনকে রিপাবলিকান দলীয় সিনেটর লিন্ডসে গ্রাহাম জানান, উত্তর কোরিয়াকে থামাতে যদি যুদ্ধ করতে হয় তবে তা সেখানেই হবে, যুক্তরাষ্ট্রে নয়। তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প মনে করেন, যা মানুষ মরবে তা সেখানেই মরবে। এই কঠোর বক্তব্যের পরপরই মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী কথা বলেন নরম সুরে।

কোরীয় উপদ্বীপের চলমান উত্তেজনার জন্য রাশিয়ার উস্কানিকে দায়ী করে আঞ্চলিক অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির বিষয়ে মস্কোর দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের ওপর জোর দিয়েছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। জর্জিয়ার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এদিকে, উত্তরের হুমকি মোকাবিলায় আমেরিকার ওপর আর ভরসা হারাচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ার অনেকে। বিশেষ করে প্রেসিডেন্ট ডেনাল্ড ট্রাম্পের কিছু বক্তব্য তাদেরকে হতাশ করেছে। এই অবস্থায় উত্তরের পরমাণু হুমকি মোকাবিলায় নিজেদের পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি শুরু করার উচিত বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির সাংসদ ইউ ইয়াং সেউক।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx