পদ্মাসেতুর ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজতে ৩১ আগস্টের মধ্যে কমিশন গঠন করে প্রতিবেদন দাখিল করতে হাইকোর্টের নির্দেশ।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: পদ্মাসেতু নির্মাণ চুক্তি ও দুর্নীতি নিয়ে মিথ্যা গল্প সৃষ্টির পেছনে প্রকৃত ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে, কেন কমিটি বা কমিশন গঠন করা হয়নি এই প্রশ্ন রেখেছেন হাইকোর্ট।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাসের কাছে এই প্রশ্ন রেখে আদালত বলেন, ফেব্রুয়ারি মাসে অর্ডার দেয়ার পরেও এখনো কেন চিঠি চালাচালি চলছে?

এরপর আদালত আগামি ৩১ অাগস্টের মধ্যে কমিটি বা কমিশন গঠন করে প্রতিবেদন দাখিল করতে নির্দেশ দেন। আদালত পরবর্তী শুনানির জন্য ৩ অক্টোবর দিন ধার্য করেন।

বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও মোহাম্মদ উল্লার সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ বুধবার এই আদেশ দেন।

১৫ ফেব্রুয়ারি পদ্মাসেতু নির্মাণচুক্তি ও দুর্নীতি নিয়ে মিথ্যা গল্প সৃষ্টির পেছনে প্রকৃত ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে কমিটি বা কমিশন গঠনের জন্য কেন নির্দেশ দেয়া হবে না তা জানতে রুল জারি করেছিল হাইকোর্ট।  সেই সঙ্গে ষড়যন্ত্রকারীদের কেন বিচারের মুখোমুখি করা হবে না রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়।

দুই সপ্তাহের মধ্যে রূলের জবাব দিয়ে এই রুলের আলোকে কমিটি বা কমিশন কী পদক্ষেপ নিয়েছেন তা ৩০ দিনের মধ্যে আদালতকে জানাতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি দৈনিক ইনকিলাব পত্রিকায় প্রকাশিত একটি সংবাদসহ বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন নজরে নিয়ে আদালত রুল দেয়

ফেসবুক মন্তব্য
xxx