নিউজটি পড়া হয়েছে 217

স্রোত-কাদার সাথে যুদ্ধ করেই এগিয়ে চলছে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ

সিলনিউজ২৪.কমঃ দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রকল্প পদ্মা সেতুর সার্বিক কাজ স্রোত আর কাদার সঙ্গে যুদ্ধ করেই এগিয়ে চলছে। একদিকে বর্ষা মৌসুমে প্রচণ্ড স্রোতের কারণে পদ্মায় কাজ করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে নদীর তলদেশে কাদার স্তর ধরা পড়ায় ১৪টি পিলারের নকশা পরিবর্তন করতে হচ্ছে। এ অবস্থায় কাজের সার্বিক গতি কিছুটা কমলেও হাল ছাড়েননি প্রকল্পের কর্মকর্তারা।

এ দুই বাধা কাটিয়ে নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে দিন-রাত কাজ করছেন দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞ ও শ্রমিক-কর্মচারীরা।

জানা গেছে, বর্তমানে পুরোপুরি কাজ চলছে ৩৭, ৩৮, ৩৯ ও ৪০নং পিলারের। এগুলোর ঢালাই হয়েছে। এখন ক্যাপ বসানো হচ্ছে। তীব্র স্রোতের কারণে মাঝ নদীতে সামান্য স্থবিরতা থাকলেও ওয়ার্কশপে পুরোদমে কাজ চলছে। তাই নির্দিষ্ট সময়ে পদ্মা সেতুর বাস্তবায়ন বাধাগ্রস্ত হবে না বলে মনে করছেন প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা।

সূত্র জানায়, পদ্মা নদীর তলদেশ থেকে প্রতিবছর কিছু মাটি সরে যায়। খরস্রোতের কারণে এমনটি হয়। তাই সেতুটির পাইল অনেক গভীর হতে হবে। বিশ্বে কোনো সেতুতে এত গভীর পাইল করতে হয়নি। তবে এখন পাইলের শেষ প্রান্তে কাদা মাটির স্তর ধরা পড়ায় দেখা দিয়েছে নতুন জটিলতা।

এ বিষয়ে পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘মূল নদীতে স্রোতের কারণে কাজ করতে সমস্যা হচ্ছে। বৃষ্টির কারণে কয়েকটি পিলারের কাজ চলছে। এ সময়টাতে সেতুর ডেকিং তৈরির কাজ চলছে ওয়ার্কশপে।

তিনি আরও জানান, নদীর নিচে কাদার স্তর দেখা দেয়ায় রি-ডিজাইন করতে বলা হয়েছে। আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে এর সমাধান হবে। এখনও আমি আশাবাদী, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই পদ্মা সেতুর কাজ শেষ করা যাবে।

এছাড়া পদ্মা সেতুর সার্বিক অগ্রগতি সম্পর্কে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, পদ্মার জাজিরা পয়েন্টে চলছে পাইল ড্রাইভ, মাওয়া পারে ট্রাস্ট ফেব্রিকেশন ইয়ার্ডে চলছে স্টিলের কাঠামো ও স্প্যান জোড়া দেয়ার কাজ। পিলারের ওপর গাড়ি চলাচলের জন্য বসানো হবে এই স্প্যানগুলো।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx