নিউজটি পড়া হয়েছে 296

মহানায়ক উত্তম কুমারের ৩৭তম মৃত্যবার্ষিকী।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম বিনোদন ::: বাংলা চলচ্চিত্রের মহানায়ক উত্তম কুমার। তাঁর ৩৭তম প্রয়াণবার্ষিকী ছিল কাল।

‘ফ্লপ মাস্টার জেনারেল’ একসময় স্টুডিওপাড়ায় এই নামেই তাঁকে চিনত সবাই। কিন্তু পরবর্তীকালে তিনিই হয়ে ওঠেন বাংলা চলচ্চিত্রের মহানায়ক। উত্তম কুমার–পারিবারিক নাম অরুণ কুমার চট্টোপাধ্যায়।

উত্তম কুমারের জন্ম ১৯২৬ সালের ৩ সেপ্টেম্বর উত্তর কলকাতার আহিরীটোলায়। একেবারেই সাধারণভাবে বেড়ে ওঠা বাঙালি মধ্যবিত্ত পরিবারে। পড়াশোনার পাট না চুকিয়েই ধরেন সংসারের হাল। পাড়ার নাটকের দল ‘সুহৃদ সমাজ’-এ অভিনয়ের শুরু। একসময় সাধারণ কেরানি থেকে হয়ে ওঠেন অভিনেতা।

রূপালি পর্দায় উত্তম কুমারের অভিষেক ‘মায়াডোর’ ছবিতে। কিন্তু তার প্রথম মুক্তি পাওয়া সিনেমা দৃষ্টিদান। ১৯৪৮ থেকে ৫২ সাল পর্যন্ত একের পর এক ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ মিললেও, ধরা দেয়নি সাফল্য। কিন্তু পরের বছরই ঘুরে দাঁড়ান ‘সাড়ে চুয়াত্তর’ ছবিটি দিয়ে। বাংলা চলচ্চিত্র পায় চিরসবুজ জুটি উত্তম-সুচিত্রাকে।

উত্তম কুমারকে ভেবেই কিংবদন্তি পরিচালক সত্যজিৎ রায় নির্মাণ করেন ‘নায়ক’। ‘অ্যান্টনি ফিরিঙ্গি’ ও ‘চিড়িয়াখানা’ ছবি দুটিতে অভিনয়ের জন্য পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ৩০ বছরের ক্যারিয়ারে অভিনয় করেছেন ২০১টি সিনেমায়। তার পরিচালিত ছবি পাঁচটি, সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন দুটি ছবিতে এবং প্রযোজনা করেছেন সাতটি ছবি।

১৯৮০ আশি সালের ২৪ জুলাই ৫৩ বছর বয়সে ছেড়ে যান এই মায়ার পৃথিবী। কিন্তু আজও মায়াডোরে বেঁধে রেখেছেন বিশ্বজুড়ে তার অগণিত ভক্তদের।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx