নিউজটি পড়া হয়েছে 283

ইন্টারপোলের মোস্ট ওয়ান্টেড অপরাধীর তালিকায় মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত চৌধুরী মুঈনুদ্দিনের নাম।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: আন্তর্জাতিক পুলিশ সংগঠনের (ইন্টারপোল) মোস্ট ওয়ান্টেড অপরাধীর তালিকায় উঠে এসেছে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত চৌধুরী মুঈনুদ্দিনের নাম।

ইন্টারপোলের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এ খবর প্রকাশ করেছে ব্রিটেনের সংবাদ মাধ্যম মিরর অনলাইন। তালিকায় চৌধুরী মুঈনুদ্দিন ছাড়াও বিভিন্ন দেশের আরও ২৪ জন অপরাধীর নাম রয়েছে।

মুক্তিযুদ্ধের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নয়জন শিক্ষক, ছয়জন সাংবাদিক ও তিনজন চিকিৎসকসহ ১৮ বুদ্ধিজীবীকে অপহরণের পর হত্যার অভিযোগে ২০১৩ সালে এই যুদ্ধাপরাধী ও জামায়াতে ইসলামি ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল (আইসিটি। বর্তমানে মুঈনুদ্দিন লন্ডনে পলাতক রয়েছেন।

মুক্তিযুদ্ধকালে চৌধুরী মুঈনুদ্দিন আলবদর বাহিনীর অন্যতম নেতা ছিলেন। ১৯৭১ সালের ১০ থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের বুদ্ধিজীবী হত্যার যে ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল আলবদর বাহিনীর সদস্যরা তার বাস্তবায়ন করে। তখন চৌধুরী মুঈনুদ্দিন ছিলেন আলবদর বাহিনীর ‘অপারেশন ইনচার্জ’।

১৯৭১ সালে চৌধুরী মুঈনুদ্দিনের সংঘটিত অপরাধের বর্ণনাও দেয়া হয়েছে ইন্টারপোলের তালিকায়। এতে বলা হয়, ৬৭ বছর বয়সী চৌধুরী মুঈনুদ্দিন ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় সাংবাদিক, শিক্ষক এবং চিকিৎসক হত্যার অভিযোগে দণ্ডিত একজন অপরাধী। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আইসিটি তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয়। লন্ডনে বসবাসরত চৌধুরী মঈনুদ্দিন বিচার চলাকালে আদালতে হাজিরা দেননি এবং সব সময় নিজেকে নির্দোষ দাবি করে আসছেন।

বুদ্ধিজীবী হত্যা মামলায় আলবদর নেতা চৌধুরী মঈনুদ্দীনের ফাঁসির আদেশ হয়েছে সাড়ে তিন বছরের বেশি সময় আগে। কিন্তু পলাতক এই আসামিকে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে দৃশ্যমান কোনও অগ্রগতি নেই। সূত্র: উ: পূ:

ফেসবুক মন্তব্য
xxx