সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এমডিকে মারধর করলেন সিলেটের মেয়র আরিফ।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: সিলেটে মেয়রের হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন বেসরকারী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক এমডি। সোমবার (১৭জুলাই) বিকেল ৩টায় নগরীর মীরবক্সটুলাস্থ ‘সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অফিস কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিবদর্শন করে।

অভিযোগে প্রকাশ, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নগরীর নয়াসড়ক-মীরবক্সটুলা রাস্তা সম্প্রসারন ও ড্রেন নির্মানের কাজ করাচ্ছেন। সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনের রাস্তায় সম্প্রসারণ কাজ করানোর জন্য মোবাইল ফোনে তিনি হাসপাতালের এমডি ডা. শাহ মো. আব্দুল আহাদের সাথে কথা বলেন। কথাবার্তার এক পর্যায়ে মেয়রের সাথে উত্তপ্ত ও অসৌজন্যমূলক বাক্য বিনিময় হয় এমডি ডা. শাহ মো. আব্দুল আহাদের। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মেয়র আরিফুল হক অফিস থেকে সহকর্মীদের নিয়ে তাৎক্ষনিক সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে যান । অফিস কক্ষে এমডি ডা. শাহ মো. আব্দুল আহাদকে পেয়েই সবার সামনে তাকে চড়-থাপ্পড় মারেন এবং বেয়াদব বলে গালমন্দ করেন। মেয়র ঘটনাস্থল ত্যাগ করার সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

কোতোয়ালি থানার এসআই হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা যাচাই করছে। লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে আইনত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা.বশির আহমদ জানান, এ ঘটনায় মেয়র ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এমডি ডা. শাহ মো. আব্দুল আহাদ নিজেই বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করতে পারেন বলে জানান তিনি।

ঘটনার ব্যাপারে সিলেটে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সাথে মুঠোফোনে বার বার যোগযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকের ফোন রিসিভ করেননি। উ:পূ:

Facebook Comments