ইকবাল এইচকে খোকন এর কবিতা।

[] কবিতা []

*** জীবনের মলাট ***
            ——- ইকবাল এইচকে খোকন

নিদ্রিত প্রাণীকুল প্রভাতী এ ক্ষণে উঠবে জেগে…
ক্ষণিকের মধ্যেই মেতে উঠবে প্রাণোচ্ছল কর্মস্পৃহায়,
হয়তো হবে কোথাও রাজ্য জয় কিংবা পতন…
সর্বপুরি মানবকুল দ্যুতি ছড়াতে চাইবে স্ব-মহিমায় ।।

আর আমি….
হতাশায় আর অজস্র যন্ত্রণায় দগ্ধ হয়ে ধুঁকছি বসে,
কখন রাত, কখন দিন, বুঝতে পারিনা আমি…
কারন, আমিই এক ব্যতিক্রম মানব, সম্পূর্ণ চেতনাহীন.. অস্তিত্বহীন,
তাই, স্বপ্নভঙ্গের স্মৃতির সাঁকোয় অনুভবে করি পারাপার ।।

আমিতো ভারসাম্যহীন নই, তবুও করছি কিসের প্রলাপ !
অনিদ্রার কালি লেপে দুচোখে, জোর করে রেখে দেয় খুলে দুচোখ,
সর্বাঙ্গীণ ভেসে আসে জীবনের খাতা, নিরবে জপে আঁখিদ্বয়,
তাই নষ্ট জীবনের মলাটই আগামী দিনের চিরসাথী ললাট ।।

আমি একাই এক সংখ্যালঘু, চারিপাশে বিশাল সংখ্যাগরিষ্ঠতা,
জীবনযুদ্ধে কিংবা সর্বঅর্থে… চাপা পড়ি আমি ও আমার স্বপ্ন,
শুধু স্বার্থপররাই ভিড়েছে পাশ.. আবার কেটেও পড়েছে সময়ের সাথে,
হয়তো কিছু স্বপ্ন দেয়.. আবার যায় ও চলে ভেঙ্গে, তারপরও…
পারিনি শুধরাতে নিজেকে, তাই পলে পলে হয়েছি বলি, সবাই হয়েছে খসাই।।

আচ্ছা ! মানুষ এমন হয় কেন ?
একটু সহানুভূতি, ভালোবাসা কিংবা স্বপ্নের বাস্তবায়ন…
কোনটিই কেউ পারেনা দিতে, শুধু নিতেই জানে অকুণ্ঠনীয়,
তাই শুধু দিয়েই গেলাম কেবল, পেলাম না কিছু, যা পেয়েছি তা সবই বিষাক্ত কালী,
তাই, জীবনের মলাট হয়েছে কালো, জীবনটাও হয়েছে ধ্বংসের চূড়ান্ত।।

লেখক: সম্পাদক

সিলনিউজ২৪.কম

১৬ মে ২০১৭

Facebook Comments