তাঞ্জানিয়ায় বাস খাদে পড়ে ২৯ স্কুলশিশুসহ নিহত হয়েছেন ৩৪ জন।

সিলনিউজ২৪.কমঃ আফ্রিকার তাঞ্জানিয়ায় বাস খাদে পড়ে একই স্কুলের ২৯ জন স্কুলশিশুসহ নিহত হয়েছেন ৩৪ জন। তাদের মধ্যে দুজন শিক্ষক এবং একজন বাস চালক রয়েছেন।

শনিবার সকালে তাঞ্জানিয়ার নর্দান এলাকার একটি স্কুলের বাস খাদে পড়লে এই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে।

তাঞ্জানিয়ার নর্দান সিটি আরুশাহ এলাকার ‘লাকি ভিনসেন্ট প্রাইমারি স্কুলের’ শিক্ষার্থী শিক্ষক এবং বাস চালক এই সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হন। তারা সবাই অন্য একটি স্কুল পরিদর্শন যাওয়ার সময় এই দুর্ঘটনার কবলে পড়েন।

স্কুলটির পরিচালক মুশি বলেন, আমরা আমাদের ২৯ জন ছাত্র-ছাত্রীকে হারিয়েছি,দুজন শিক্ষক এবং একজন ড্রাইভারকে হারিয়েছি। শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১২ জন বালক এবং ১৭ জন বালিকা রয়েছে বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।

আরুশার পুলিশ কমান্ডার চার্লস মকাম্বো রয়র্টাসকে জানান, বৃষ্টিস্নাত সময়ে পাহাড়ি ঢালু পথে নামার সময় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। আমরা এখনো তদন্ত চালাচ্ছি। খতিয়ে দেখার চেষ্টা করছি কোন যান্ত্রিক ত্রুটি বা চালকের কোন দুর্ঘটনাটি ঘটেছে কিনা। এখনো উদ্ধার তৎতপরতা অব্যাহত রয়েছে।

দুঘর্টনায় নিহতদের স্মরণে দেশটির প্রেসিডেন্ট এক বিবৃতিতে ‘জাতীয় শোক’  ঘোষণা করেছে।

তাঞ্জানিয়া পূর্ব আফ্রিকার দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনৈতিক সমৃদ্ধ একটি দেশ। সড়ক প্রধান দেশ হওয়া সত্ত্বেও সড়ক নিরাপত্তা নিম্নমানের কারণে  প্রায় দুর্ঘটনার প্রাণ হরাতে হয়। সরকারি তথ্য মোতাবেক নিম্ন সড়ক নিরাপত্তার কারণে ২০১৪-২০১৬ সালে মোট ১১০০০ লোক প্রাণ হারিয়েছে বলে জানা যায়।

Facebook Comments