এডিবির বোর্ড সভায় ৫ সহস্রাধিক প্রতিনিধি যোগ দিচ্ছেন।

সিলনিউজ২৪.কমঃ আগামীকাল ৪ মে থেকে ৭ মে পর্যন্ত জাপানের ইয়োকোহামায় অনুষ্ঠিতব্য এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) পরিচালনা পর্ষদের ৫০তম বার্ষিক সভায় উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপসহ এ অঞ্চলের পাঁচ হাজারেরও বেশি প্রতিনিধি যোগ দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

সভায় যোগ দিতে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অর্থ ও উন্নয়ন মন্ত্রী, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর, অন্যান্য উর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী নির্বাহী, সাংবাদিক, শিক্ষাবিদ এবং সুশীল সমাজ, উন্নয়ন সংগঠন ও যুব সংগঠনের প্রতিনিধিগণ আজ ইয়োকোহামায় আসতে শুরু করেছেন।

‘বিল্ডিং টুগেদার দ্য প্রোসপারটি অব এশিয়া’ এই প্রতিপাদ্যকে এ বছর বার্ষিক সভায় মূল সুর হিসেবে তুলে ধরা হবে। টেকসই ও সার্বিক উন্নয়ন অর্জনে এ অঞ্চলের নাজুক খাত অবকাঠামো উন্নয়নের ক্রমবর্ধমান চাহিদাকে এ বছর গুরুত্ব দেয়া হবে।

নগরায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা এবং সবুজায়ন রক্ষা ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব কাটিয়ে উন্নয়ন প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখা যায় তা নিয়ে সভায় আলোচনা করা হবে।

৫ মে অনুষ্ঠিতব্য মূল সেমিনারে এ অঞ্চলের বিগত ৫০ বছরের অভিজ্ঞতার আলোকে বাণিজ্য, বিনিয়োগ ও অর্থ সংক্রান্ত বিষয়ে সংস্কার নিয়ে আলোচনা করা হবে। এডিবি’র ৫০তম বার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে প্রকাশিত একটি বিশেষ প্রকাশনার ওপর ৪ মে আলোচনা করা হবে। এতে এডিবি’র ভূমিকা ও ভবিষ্যৎ করণীয় নিয়ে আলোচনা ও মতবিনিময় করা হবে।

মূল অধিবেশনগুলোতে বৈষম্য বৃদ্ধি, সামষ্টিক অর্থনৈতিক স্থিতি, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার অগ্রগতিসহ নীরব ইস্যুগুলোর উন্নয়ন বিষয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। এই বার্ষিক সাধারণ সভায় এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উন্নয়ন কর্মসূচিতে প্রাইভেট সেক্টরের ভূমিকাকে গুরুত্ব দেয়া হবে। সেমিনারে পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশীপ ও সহযোগী অর্থদাতাদের ভূমিকা তুলে ধরা হবে।

এডিবির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, স্বাগতিক দেশ জাপান আগামী ২০ বছরের প্রক্ষেপনে এশিয়ার অর্থনৈতিক সংকটের অভিজ্ঞতা নিয়ে আলোচনা এবং দারিদ্র্য হ্রাস ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধির ওপর যুবকদের একটি ইভেন্টসহ বেশ কয়েকটি ইভেন্টের আয়োজন করবে।

মূল অধিবেশন ও এডিবি প্রেসিডেন্টের সংবাদ সম্মেলন সরাসরি প্রচার করা হবে। প্রতিনিধিরা ফেসবুক, টুইটারসহ সামাজিক মাধ্যমগুলোর মাধ্যমে নিজেদের বার্ষিক সাধারণ সভায় সম্পৃক্ত করতে পারবেন।

ম্যানিলাভিত্তিক সংস্থা এডিবি অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি, পরিবেশের টেকসই জোরদার ও আঞ্চলিক সমন্বয়সহ এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে দারিদ্র্য নিরসনে নিবেদিত।

১৯৬৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এডিবি এ অঞ্চলে উন্নয়নের অংশীদার হিসেবে ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন করছে। এ অঞ্চলের ৪৮ সহ ৬৭ সদস্য এর মালিকানায় রয়েছেন। ২০১৬ সালে এডিবি ১৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের যৌথ সহায়তাসহ মোট ৩১ দশমিক ৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের আর্থিক সহযোগিতা দিয়েছে।

Facebook Comments