দিনাজপুরে বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনায় আরও ছয়জনের মৃত্যু।

সিলনিউজ২৪.কমঃ দিনাজপুরে অটো রাইস মিলের বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনায় আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার সদর উপজেলার রানীগঞ্জ মোড়ে যমুনা অটো রাইস মিলের ওই দুর্ঘটনায় রোববার (২৩ এপ্রিল) পর্যন্ত এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১ জনের দাঁড়িয়েছে।

দগ্ধ অন্যরা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারী ইউনিটে চিকিৎসাধীন।

ওই হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের প্রধান মারুফুল ইসলাম জানান, দিনাজপুরের বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার রোগীদের মধ্যে বুধবার রঞ্জিতা রানি রায় (৪০) ও মোকছেন আলী (৫০) নামের ২ রোগী মারা যান। বৃহস্পতিবার সকালে আরিফুল ইসলাম (৩০), শুক্রবার সকালে রোস্তম আলী (৪৫) মারা যান।

তিনি জানান, রোববার সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান শফিকুল ইসলাম (১৯), উদয় চন্দ্র (৫০), দুলাল চন্দ্র (৩৫)।

মারুফুল ইসলাম জানান, এরপর রাত ৮টার দিকে মুকুল চন্দ্র (৪৬) ও রাত সোয়া ৯টার দিকে মুন্না (৩২) নামের এক রোগী মারা যান রংপুর মেডিকেলে। এছাড়া রোববারই ঢাকায় চিকিৎসাধীন দেলোয়ার হোসেন (৩৮) ও রাইস মিলের ব্যবস্থাপক রনজিত বসাক (৫০) মারা যান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বয়লার বিস্ফোরণের ভয়াবহতা এতটাই তীব্র ছিল যে ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ৪০০ গজ দূরে মিলের মালামাল ছিটকে পড়ে। ঘটনার পর মিলের স্বত্বাধিকারী সুবল ঘোষকে পাওয়া যায়নি।

Facebook Comments