প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভুটানে বাংলাদেশ দূতাবাসের চ্যান্সেরি ভবনের ভিত্তিপ্রস্তরের ফলক উন্মোচন করলেন।

সিলনিউজ২৪.কমঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভুটানের হেজোতে বাংলাদেশ দূতাবাসের চ্যান্সেরি ভবনের ভিত্তিপ্রস্তরের ফলক উন্মোচন করেছেন। বুধবার (১৯ এপ্রিল) ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগেল ওয়াংচুক এবং ভুটানের প্রধানমন্ত্রী দাসো তেসারিং তোবগে’র উপস্থিতিতে একটি বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী এই নামফলক উন্মোচন করেন।

এর আগে, হেজোতে বাংলাদেশের দূতাবাস প্রতিষ্ঠার জন্য জায়গা বরাদ্দে দুইদেশের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী এবং ভুটানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিয়নপো দামচো দর্জি নিজ নিজ দেশের পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন।

ভুটানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জিষ্ণু রায় চৌধুরী এবং ভুটানের ল্যান্ড কমিশন সচিব পেমা চেওয়াং অ্যাম্বাসীর জন্য জায়গা বরাদ্দের চুক্তিনামায় স্বাক্ষর করেন।পরে, বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয় এবং জাতীয় সঙ্গীত বাজানো হয়।

এসময় ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগেল ওয়াংচুক, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভুটানের প্রধানমন্ত্রী দাসো তেসারিং তোবগে উপস্থিত ছিলেন পরে তাঁরা মঞ্চ থেকেই বাংলাদেশের জন্য বরাদ্দকৃত জমিটিও দেখেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হেজোতে পৌঁছলে ভুটানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিয়নপো দামচো দর্জি,ভুটানের গণপূর্ত এবং মানব সেটেলমেন্ট বিষয়ক সচিব ফুনতুশো ওয়াংদি এবং ভুটানের ল্যান্ড কমিশন সচিব পেমা চেওয়াং প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান।

এইসফরে দ্বৈতকর প্রত্যাহার, বাংলাদেশের নৌপথ ভুটানকে ব্যবহার করতে দেয়া, ভুটানে বাংলাদেশ দূতাবাসের ভবনের জন্য জমি দেয়াসহ বাংলাদেশ ও ভুটানের মধ্যে ৬টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

Facebook Comments