পুজিঁবাজারে ছয় মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন।

সিলনিউজ২৪.কমঃ সূচকের অব্যাহত পতনে গত ছয় মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে নেমে এসেছে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন। বৃহস্পতিবার দিনশেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৫৭ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। এর আগে ২০১৬ সালের ৯ নভেম্বর ডিএসইতে ৫৫৪ কোটি ৯৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। এদিকে, বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) লেনদেন বাড়লেও সূচক কমেছে। ডিএসই ও সিএসই’র বাজার পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, ডিএসইতে লেনদেন হয় ৩২৪টি কোম্পানি ও ফান্ডের। এ সময় দর বেড়েছে ৮৩টির, কমেছে ১৯৬টির ও অপরিবর্তিত ছিল ৪৫টি প্রতিষ্ঠানের। এ সময় ১৮ কোটি ২৩ লাখ ৯৭ হাজার ৭৯টি শেয়ার লেনদেন হয়। যার বাজারমূল্য ছিল ৫৫৭ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। যা বিগত ৬ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন।

দিন শেষে ডিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৩৩.৪৩ পয়েন্ট কমে ৫৫২১.৬৬ পয়েন্টে স্থিতি পায়। গত ৪ এপ্রিলের পর বিগত ২৫৫.৪৫ পয়েন্ট। এদিকে বৃহস্পতিবার শরিয়াহভিত্তিক কোম্পানিগুলোর মূল্যসূচক ডিএসইএস কমেছে ৭.৪৭ পয়েন্ট ও ডিএস-৩০ সূচক কমেছে ৪.৭৩ পয়েন্ট।

ডিএসইতে টার্নওভার তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের শাহজিবাজার পাওয়ার। এদিন কোম্পানিটির ২৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। টার্নওভারে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল রিজেন্ট টেক্সটাইল, প্রতিষ্ঠানটির ২১ কোটি ৩৪ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২০ কোটি ২৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে ছিল লংকাবাংলা ফাইন্যান্স।

এ ছাড়াও টার্নওভার তালিকায় থাকায় কোম্পানিগুলোর মধ্যে ইসলামিক ফাইন্যান্সের ১৯ কোটি ৩৯ লাখ টাকা, সাইফ পাওয়ারটেকের ১৫ কোটি ৯৪ লাখ টাকা, বিডিকম অনলাইনের ১৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা, আইসিবি’র ১৩ কোটি ১৬ লাখ টাকা, বেক্সিমকো ফার্মার ১২ কোটি ৭৩ লাখ টাকা, আরএসআরএম স্টিলের ১২ কোটি ১২ লাখ টাকা ও আইডিএলসি ফাইন্যান্সের ১১ কোটি ১৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক সিএসসিএক্স ৭৬.৪৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৩৬৮ পয়েন্টে। দিনশেষে সিএসইতে ৫৩ কোটি ৬৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। লেনদেন হওয়া ২৪১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছে ৫৬টির, কমেছে ১৫৬টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৯টির।

সিএসইতে টার্নওভার তালিকায় শীর্ষে ছিল ফার কেমিক্যাল। এ সময় কোম্পানিটির ৯ কোটি ৬৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। টার্নওভার তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হলো- বেক্সিমকো ফার্মা, মবিল যমুনা, বিএসআরএম স্টিল, বিডিকম অনলাইন, ইসলামিক ফাইন্যান্স, শাহজিবাজার পাওয়ার, তুং হাই নিটিং, হামিদ ফেব্রিকস ও এক্সিম ব্যাংক।

Facebook Comments