বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়ার বিরুদ্ধে টিআইবি।

সিলনিউজ২৪.কমঃ প্রতিবারের মতো এবারের বাজেটেও আবাসন খাতে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ চেয়েছেন আবাসন খাতের ব্যবসায়ীদের সংগঠন-রিহ্যাব। তবে এতে দুর্নীতি প্রশ্রয় পাবে বলে মনে করে টিআইবি। আর অর্থনীতিবিদরা বলছেন, প্রতিবছর যে পরিমাণ টাকা সাদা হয়, তা অর্থনৈতিক উন্নয়নে কোনো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে না। তাই এ সুযোগ বন্ধ করাই ভালো। 

বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ প্রায় নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছে। অর্থপাচার বন্ধে সরকারও এ সুযোগ দিয়ে আসছে। রাজস্ব আয় ও বিনিয়োগ বাড়ানোই এর মূল লক্ষ্য। এ সুযোগ বন্ধ হলে কালো টাকা বিদেশে পাচার হবে এমন যুক্তি দেখিয়ে আবাসন খাতে আবারো কালো টাকা সাদা করার সুযোগ চায় রিহ্যাব। এছাড়া আবাসনে মন্দা কাটাতে কালো টাকা বিনিয়োগের বিকল্প নেই বলে মনে করেন ব্যবসায়ীরা।

রিহ্যাবের পরিচালক কামাল মাহমুদ বলেন, কালো টাকা সাদা করার সুযোগ অব্যাহত থাকলে দুর্নীতি প্রশ্রয় পাবে। যা শেষ পর্যন্ত সামগ্রিক অর্থনীতির জন্য ক্ষতিকর বলে মনে করে টিআইবি।

টিআইবি নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, কালো টাকার দৌরাত্ব না কমলেও গত কয়েক বছরে সাদা করার প্রবণতা কমেছে। এ কারণে খুব বেশি কালো টাকা বিনিয়োগ হয়নি। তাই এ সুযোগ বন্ধ করে দেয়ার পরামর্শ অর্থনীতিবিদদের। 

এনবিআরের তথ্য অনুযায়ী কালো টাকা সাদাকরবর্ষ করদাতা টাকা ২০১৩-১৪ ১৫৭ জন ১৭৬ কোটি ৯০ লাখ টাকা২০১৪-১৫ ২২২ জন ৬৭৬ কোটি টাকা ২০১৫-১৬ ১৬ জন ২ কোটি ৯২ লাখ টাকা 

অর্থনীতিবিদ তৌফিকুল ইসলাম খান বলেন, উৎস দুর্নীতি নয় এমন অপ্রদর্শিত আয় অর্থনীতিতে আনার সুযোগ থাকা দরকার বলে মনে করেন অর্থনীতিবিদরা।

Facebook Comments