অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে কারো হস্তক্ষেপ জনগণ মেনে নেবে নাঃ জাসাসের বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে খালেদা জিয়া।

সিলনিউজ২৪.কমঃ বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, দেশের বাইরে আমাদের কোনো প্রভু নেই। স্বাধীন দেশের এ অবস্থায় দেশের জন্য অনেকে অনেক কিছু করতে চায়। কিন্তু এ সুযোগে যদি কেউ দেশের প্রভু সাজতে চায় তা মেনে নেওয়া হবে না। প্রতিহত করা হবে।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বাংলা নববর্ষের অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাস) বর্ষবরণের এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে দেশবাসী ও দলীয় নেতা-কর্মীদের শুভেচ্ছা জানান তিনি।

খালেদা জিয়া বলেন, দেশের অবস্থা দেখে অনেকে এগিয়ে আসতে চায় অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করার জন্য। আমরা বলতে চাই, আমরা সবাইকে বন্ধু হিসেবে দেখতে চাই, কিন্তু কেউ যদি আমাদের বন্ধু হয়ে প্রভু হতে চায়, সেটা মানব না।

জাতীয় ঐক্য সৃষ্টির আহ্বান জানিয়ে খালেদা জিয়া বলেন, বিএনপি সব সময় জনগণের কল্যাণ এবং জাতীয় ঐক্যে বিশ্বাস করি এবং জাতীয়ভাবে ঐক্যবদ্ধ থাকলেই অতিদ্রুত দেশের উন্নতি করা সম্ভব। আমরা দেশ থেকে বিদায় করব সন্ত্রাস, আমরা দেশ থেকে বিদায় করব গুম, খুন, হত্যা, জঙ্গি হামলা এবং নানা রকম ষড়যন্ত্র।

প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর প্রসঙ্গে বিএনপির চেয়ারপারসন বলেন, এই সফরে দেশের মানুষের প্রাপ্তি শূন্য। তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যাসহ দেশের স্বার্থরক্ষায় প্রধানমন্ত্রী দরকষাকষি করতে পারেননি বলে মনে করেন তিনি।

খালেদা জিয়া বলেন, আমরা জানি দেশের মানুষ কষ্টে আছে। কয়েকদিন আগে বৃষ্টি ও বাইরের পানি এসে হাওর অঞ্চলে মানুষের ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তাই গরিবের পাশে দাঁড়াতে হবে। এটাই আমাদের লক্ষ্য।

জাতীয়তাবাদী সামাজিক সংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাদ) আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, তরিকুল ইসলাম, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় , আবদুল মঈন খান, নিতাই রায় চৌধুরী, জাসাস নেতা হেলাল খান, বাবুল আহমেদ, আশরাফ উদ্দিন উজ্জ্বল, শায়রুল কবির খান, সালাহ উদ্দিন ভুইয়া শিশির, ওবায়দুর রহমান চন্দন প্রমুখ। 

Facebook Comments