Tuesday, 23 July, 2019

অপু বিশ্বাসের সাথে এখন আর কোনো সমস্যা নেইঃ শাকিব খান


সিলনিউজ২৪.কমঃ দেশের খ্যাতিমান চিত্রনায়ক শাকিব খান ও চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের বিয়ে নিয়ে দেশজুড়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। এ নিয়ে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য দিচ্ছেলেন শাকিব ও অপু। এর মধ্যেই মঙ্গলবার দুপুরে শাকিব জানালেন, অপু আর তার মধ্যে এখন আর কোনো সমস্যা নেই।

অপু বিশ্বাসকে স্ত্রী হিসেবে স্বীকার করে শাকিব খান সমকালকে বলেন, ‘অপু আমার স্ত্রী আর আব্রাহাম আমারই সন্তান। এখন আমাদের সম্পর্ক স্বাভাবিক। এখন আমরা সুন্দর ভবিষ্যতের প্রত্যাশা করি।

শাকিব নিজের ভুল স্বীকার করে বলেন, সে (অপু) আমার বিবাহিত স্ত্রী। মাঝে আমাদের মধ্যে ভুল বুঝাবুঝি হয়েছিল। এজন্য অপু এমন কাণ্ড ঘটাবে তা কখনও কল্পনা করতে পারিনি। অপুকে কেউ ভুল বুঝিয়ে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার চেষ্টা করেছে। গতকাল আমি অপুকে নিয়ে রাগের মাথায় গণমাধ্যমে অনেক কথা বলেছি। গত দুইদিন আগে আমি অপু এবং আব্রামকে নিয়ে গাড়িতে করে ঢাকা শহর ঘুরে বেড়িয়েছি। তৃতীয় পক্ষের ইন্ধনে হঠাৎ করে অপু টেলিভিশনের লাইভে আসবে এটা চিন্তা করিনি। যা হয়েছে ভালোই হয়েছে।

এ ঘটনার জন্য শাকিব তার আশেপাশের মানুষদের দায়ী করে বলেন, ‘কালকের দিনটা আমার অনুকূলে ছিল না। এখন আর আমাদের মাঝে কোনো সমস্যা নেই। এখন সামনে এগিয়ে যাওয়ার সময়। অপু আমার বিবাহিত স্ত্রী, সে আমার সন্তানের মা। আমরা একসঙ্গে খুব ভালোই ছিলাম। ইনশা আল্লাহ ভবিষ্যতেও আমি আমার সন্তানের মাকে নিয়ে ভালোভাবেই থাকব।’

সোমবার অপু বিশ্বাস শিশু সন্তানসহ উপস্থিত হন একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে। সেখানে তিনি বলেন, শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে তার। শুধু তাই নয়, তাদের একটি সন্তান আছে, তার নাম আব্রাহাম খান জয়। অন্যদিকে শাকিব খানও বিয়ে এবং সন্তানের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তবে তিনি এও বলেন সন্তানের দায়িত্ব নেবেন কিন্তু অপুর দায়িত্ব তিনি নেবেন না।

২০০৬ সালে ‘কোটি টাকার কাবিন’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে শাকিব-অপুর জুটি গড়ে ওঠে। এরপর কয়েকটি ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র আসে তাদের জুটিতে।

দীর্ঘ সময় লোকচক্ষুর আড়ালে থাকার সময়ে শাকিব তার নতুন নায়িকা হিসেবে বেছে নেন টিভি উপস্থাপিকা বুবলীকে। অপুর দাবি, তার ছেড়ে যাওয়া সিনেমাতেই মূলত কাজ করার সুযোগ পায় বুবলি।

0 comments on “অপু বিশ্বাসের সাথে এখন আর কোনো সমস্যা নেইঃ শাকিব খান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *