কারেকশনের পর আবারও উত্থানে ফিরেছে পুজিঁবাজার

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের উর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় টানা তিন কার্যদিবস পতনের পর উত্থানে বিরাজ করছে বাজার। এইদিন শুরু থেকে অন্যান্য খাতে ক্রয় প্রেসার থাকলেও ৫০ মিনিট পর ব্যাংক, বীমা এবং আর্থিক খাতের সেল প্রেসারে নামতে থাকে সূচক। এবং শেষ দিকে সম্মলিত ক্রয় চাপে আবারও ঘুড়ে দাঁড়ায় বাজার। সোমবার সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দরে। আর টাকার অংকে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৯৩৮ কোটি টাকা।

এ প্রসঙ্গে একাধিক মার্চেন্ট ব্যাংক ও ব্রোকারেজ হাউজের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, গত কয়েক দিনের ধারবাহিক উত্থানের পর বিনিয়োগকারীদের মধ্যে মুনাফা তুলে নেয়ার ঝোঁক বিরাজ করে। ২০১০ সালে বাজার ধসের পর থেকে কিছুতেই যেন বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থা ফিরে আসছে না। এরই অংশ হিসেবে কোন শেয়ারে সামান্য লাভ থাকলেই তা বিক্রি করতে শুরু করেন তারা। এরই জের ধরে গত তিন কার্যদিবস বাজার কিছুটা নিম্নমুখী ছিলো বলো মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিশ্লেকদের অভিমত, গতকালের কারেকশনের পর আজকের আবারও উত্থানে ফিরেছে বাজার। কারেকশনের পার আজকের সূচক ও লেনদেন বৃদ্ধি বাজারের জন্য শুভ ইঙ্গিত। কেননা টানা পতন কিংবা টানা উত্থান কোনোটাই বাজারের জন্য ইতিবাচক নয়। আর বাজারে এমন ধারা বিদ্যমান থাকলে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের পাশাপাশি সাধারণ বিনিয়োগকারীদেরও আস্থা ফিরে আসবে।

সোমবার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৪৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫৭৩৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১৮ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩২০ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৩২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ২১১৫ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩২৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৬১টির, কমেছে ১২৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৯৩৮ কোটি ২৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

এর আগের কার্যদিবস অর্থাৎ রোববার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৫৬৯১ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৩০১ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২০৮৩ পয়েন্টে। আর ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ৭৪১ কোটি ৬ লাখ ৭২ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১৯৭ কোটি ২২ লাখ ৮ হাজার টাকা।

এদিকে, দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ব্রড ইনডেক্স ১০২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১০ হাজার ৭৯১ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৪৪টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৩১টির, কমেছে ৮৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৬৫ কোটি ৩৬ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

Facebook Comments