সোমবার, ০১ Jun ২০২০, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন

১০ বছরের শিশু আমীরকে হত্যার চেষ্টা : দুলাভাই পলাতক

১০ বছরের শিশু আমীরকে হত্যার চেষ্টা : দুলাভাই পলাতক

সিলনিউজ ডেস্কঃ  আপন দুলাভাই পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ১১/১২ বছরের শিশু আমিরকে দাঁরালো দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মুখের ডান গালে ও মাথার পিছনে ডান পাশে আঘাত করে বড়াটুকায় একটি রাস্তার পাশে পায়খানার (সেফটিক টেংক)এ ফেলে দেয়।

ঘটনাটি ঘটে গত ১৮ ডিসেম্বর বুধবার।

আমির উদ্দিনকে (১০) পিতা সমুজ আলী গ্রামঃ জাহিদপুর, থানা ছাতক সুনামগঞ্জ মাত্র ১০ বছর বয়সের ফুটফুটে ছেলেটিকে হত্যার উদ্দেশ্যে গতরাত শারীরিক ও মানষিক নির্যাতনের পর আজ ভোরবেলা দুই হাত বেঁধে সেফটিক ট্যাংকের ভিতরে ফেলে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে তারই আপন দুলাভাই শিপন মিয়া, পিতা খালিক মিয়া গ্রামঃ ভরাটুকা থানাঃ ছাতক, সুনামগঞ্জ।

সহায় সম্বলহীন ও ভিটা বাড়িহীন অসহায় পিতার নির্যাতিত ছেলেটির ভাষ্যমতে গতকাল সন্ধ্যার পরে তার দুুুুুলাভাই জাহিদপুর বাজারে এসে জোরপূর্বক তাকে সিএনজি অটোরিকশায় করে তার বাড়ি (বরাটুকা) তোলে নিয়ে যায়। সারারাত গালি-গালাজ করতঃ নির্যাতনের পর ভোরবেলা ২ হাত বেধে তার বাড়ির পাশের একটি সেফটিক ট্যাংকের ভিতরে ফেলে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপাতে থাকে। প্রাণ বাচানোর জন্য সেফটি ট্যাংকে সে ডুব দিয়ে এক সাইডে চলে যাওয়ায় কুপানোর সুযোগ না পেয়ে সেফটি ট্যাংকের ডাকনা লাগিয়ে চলে যায়। একটু নিরব থাকার পর সাহায্যের জন্য চিৎকার করলে আসপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের ক্যাজুয়েলিটি বিভাগে ভর্তি করেন।

জাহিদপুর পুলিস তদন্ত কেন্দ্রের এসআই বেলাল আহমেদ গণমাধ্যমকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© ২০১৭ - সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - সিলনিউজ২৪.কম
ডিজাইন ও ডেভেলপে Host R Web