সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:৪৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
‘তেলা পোকাও পাখি আর শাজাহান খানও মানুষ’ : এমপি নিক্সন চৌধুরী এডভোকেট নাসির উদ্দীন খাঁনকে বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের ফুলেল শুভেচ্ছা মাসুক উদ্দিন আহমদকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে সিলেট আইনজীবী সমিতি সুরমা মার্কেট থেকে ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব চুনারুঘাট থেকে ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৯ সিলেট মহানগর যুবদলের ১১নং ওয়ার্ডের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত টেকনিক অব আর্টস এন্ড ক্রাফটস’র উপর ৫টি দিন ব্যাপী কর্মশালা সমাপনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন জগন্নাথপুরে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু এসএ গেমসে একদিনেই বাংলাদেশের ৬টি স্বর্ণ জয় ২৮ ক্যাটাগরিতে ৬২ জনকে দেওয়া হলো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার
মুসলিম ছাড়া সব শরণার্থী নাগরিকত্ব পাবেন ভারতে

মুসলিম ছাড়া সব শরণার্থী নাগরিকত্ব পাবেন ভারতে

সিলনিউজ অনলাইনঃ ভারতে বৈধতা পেতে যাচ্ছেন বাংলাদেশ, আফগানিস্তান, পাকিস্তানের অমুসলিম শরণার্থীরা। নাগরিকত্ব সংশোধন বিলে অনুমোদন দিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা। আজ (বৃহস্পতিবার) সেটি তুলা হবে পার্লামেন্টে। এ বিলকে অসাংবিধানিক বলছেন কংগ্রেস নেতারা।

গেল এক বছর ধরেই ভারতের রাজনীতিতে উত্তাপ ছড়াচ্ছে, সংখ্যালঘু শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেয়ার বিষয়টি। বুধবার আলোচিত বিলটি অনুমোদন দেয় ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা।

ভারতের তথ্যমন্ত্রী প্রকাশ জাবেদকার বলেন, ভারতে আশ্রিত বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দিতে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রিসভা। শিগগিরই এটি লোকসভায় তোলা হবে।

বলা হচ্ছে, বিলটি আইনে পরিণত হলে ভারতে থাকা হিন্দু, খ্রিষ্টান, শিখ, জৈন, বৌদ্ধ ও পার্সী এ ৬ ধর্মের শরণার্থীরা পাবেন নাগরিকত্ব। বিজেপি এ বিলকে সাধুবাদ জানালেও, একে ধর্মনিরপেক্ষ ভারতের সংবিধান পরিপন্থী বলছেন বিরোধী কংগ্রেস নেতারা।

সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও কংগ্রেস নেতা শশী থারুর বলছেন, এ বিল অসাংবিধানিক। এতে ভারতের মূল্যবোধকে অস্বীকার করা হয়েছে। যারা ধর্মের ভিত্তিতে জাতীয়তায় বিশ্বাসী, তাদের বুঝতে হবে এটি পাকিস্তানি চিন্তা। গান্ধীজী, নেহরু, মাওলানা আযাদ ও আম্বেদকারের দর্শন হলো-ধর্ম কখনো জাতীয়তা নির্ধারণ করতে পারে না।

আর বিজেপি নেতা সুধানশু ত্রিবেদি বলেন, যদি কোনো জাতি বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের সংখ্যালঘুদের পাশে দাঁড়ায়, তা হবে ধর্মনিরপেক্ষ ভারতেরই বৈশিষ্ট্য।

নাগরিকত্ব সংশোধন বিল নিয়ে আসাম, মনিপুর, নাগাল্যান্ডের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। যাতে ডাকা হয়, বিলের বিরোধিতাকারী উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আন্দোলনকারী দলগুলোকেও।

অল আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়নের প্রধান উপদেষ্টা সমুজ্জল ভট্টাচার্য্য বলেন, বিজেপি বলতে চাইছে, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল দেশের জন্য ভালো। কিন্তু আমরা বলেছি, এটা উত্তর পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলোর জন্য খুবই বাজে হবে। জানিয়েছে এ বিলের বিরুদ্ধে আন্দোলন চলবে।

২০২৪ সালের মধ্যে পুরো ভারতে এনআরসি কার্যকরে অমিত শাহর ঘোষণাকে রাজনৈতিক চাল আখ্যা দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© ২০১৭ - সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - সিলনিউজ২৪.কম
ডিজাইন ও ডেভেলপে Host R Web