সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:০৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
‘তেলা পোকাও পাখি আর শাজাহান খানও মানুষ’ : এমপি নিক্সন চৌধুরী এডভোকেট নাসির উদ্দীন খাঁনকে বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের ফুলেল শুভেচ্ছা মাসুক উদ্দিন আহমদকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে সিলেট আইনজীবী সমিতি সুরমা মার্কেট থেকে ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব চুনারুঘাট থেকে ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৯ সিলেট মহানগর যুবদলের ১১নং ওয়ার্ডের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত টেকনিক অব আর্টস এন্ড ক্রাফটস’র উপর ৫টি দিন ব্যাপী কর্মশালা সমাপনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন জগন্নাথপুরে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু এসএ গেমসে একদিনেই বাংলাদেশের ৬টি স্বর্ণ জয় ২৮ ক্যাটাগরিতে ৬২ জনকে দেওয়া হলো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার
মহানগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থীতা ঘোষণা করলেন অধ্যাপক জাকির 

মহানগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থীতা ঘোষণা করলেন অধ্যাপক জাকির 

সিলনিউজ ডেস্ক:: আসন্ন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থীতা ঘোষণা করেছেন নগর আওয়ামী লীগের বর্তমান যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন।

তিনি ২০১১ সাল থেকে বর্তমান পর্যন্ত নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ২০০১-২০১১ সাল পর্যন্ত তিনি নগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন।

২০০৪ সালে নগরীর গুলশান সেন্টারে আওয়ামী লীগের সভায় জঙ্গী গোষ্ঠীর গ্রেনেড হামলায় গুরুতর আহত হন অধ্যাপক জাকির হোসেন। তার পেটে অস্ত্র পচারের মাধ্যমে গ্রেনেডের স্প্রিন্টার বের করা হলে তিনি আরোগ্য লাভ করেন। তিনির চোখ, মাথা, হাটু সহ শরীরের বিভিন্ন অংশে জাকির হোসেন গ্রোডের স্প্রিন্টারে বিদ্ধ হন।

১৯৭৫ সালের পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ পরিবারের একজন সন্তান হিসেবে জাকির হোসেন স্কুল জীবন থেকে রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন এবং জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের পক্ষে রাজনৈতিক কর্মীসূচিসহ প্রচারণায় সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। ১৯৭৯ সালে তিনি মদন মোহন কলেজের একাদশ শ্রেণিতে অধ্যয়কালীন সময় মানবিক শাখার ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়ে সাংগঠনিক ভাবে আওয়ামীলীগের রাজনীতি শুরু করেন।

তখন থেকেই তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সপরিবার হত্যাকান্ডে জড়িতদের বিচারের দাবীতে আন্দোলন-সংগ্রাম করেন। তিনি জিয়াউর রহমান সরকার ও এরশাদ সরকার পতন এবং সিমিটার গ্যাস কোম্পানী লিজ বিরোধী আন্দোলনে সফল ভূমিকা রাখেন।

অধ্যাপক জাকির হোসেন ১৯৯১-৯৩ সাল পর্যন্ত সিলেট জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক, ১৯৮৭-৯১ পর্যন্ত জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, ১৯৮৬-৮৭ সাল পর্যন্ত জেলা ছাত্রলীগের ১১ সদস্য বিশিষ্ট এডহক কমিটির সদস্য ছিলেন। ১৯৮৩-৮৬ সাল এবং ১৯৮১-৮৩ সাল পর্যন্ত দু’বার জেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক নির্বাচিত হন।

১৯৯৯ সালে আওয়ামী লীগের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে আয়োজিত সুবর্ণ জয়ন্তী পালন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে দলীয় একনিষ্ঠ ত্যাগী কর্মী হিসেবে অধ্যাপক জাকির হোসেনের পিতা মোঃ তাজিদ হোসেন বিশেষ সম্মাননা স্মারক লাভ করেন। এনডিআই ওয়ার্কশপে জাকির হোসেন লীডারশিপ ট্রেনিং গ্রহণ করেন এবং মাষ্টার ট্রেইনার হিসাবে তিনি একজন পোলিং এজেন্ট নির্বাচিত হন।

তিনি শিক্ষানুরাগী হিসেবে সিলেট নগরের মিরাবাজার মডেল হাইস্কুলের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি, হৃদয়ে ’৭১ ফাউন্ডেশনের প্রধান উপদেষ্টা, বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরাম ইউকে সিলেট জেলা কমিটির উপদেষ্টা, অন্বেষা শিল্পী গোষ্ঠী সিলেটের উপদেষ্টা, নগরীর রায়নগর বায়তুল বরাত জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য, সিলেট কেন্দ্রীয় মুসলিস সাহিত্য সংসদ, বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিট, সিলেট ডায়াবেটিক সমিতি, যক্ষা নিরোধ কমিটি (নাটাব) সিলেট, জালালাবাদ এসোসিয়েশন ঢাকার আজীবন সদস্য হিসেবে নিযুক্ত হন।

২০১৭-১৮ সালে ঢাকায় একুশে বই মেলায় অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন এর সম্পাদনায়, দিকনির্দেশনা ও পৃষ্ঠপোষকতায় “বঙ্গবন্ধুর মেয়ে তুমি শেখ হাসিনা”, ‘শেখ হাসিনার উক্তি, বাঙালির শক্তি’ শিরোনামে দুটি গীতি কবিতার বই প্রকাশ পায়। এছাড়াও আরো একটি বই তার প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের “বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী” মূল বক্তব্য ঠিক রেখে বইটি কবিতার ভাষায় রূপান্তর করার জন্য তিনি কাজ করছেন। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী এবং বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্ট কর্তৃক অনুমোদন পেলে পরবর্তী বইটি প্রকাশের প্রক্রিয়া শুরু করবেন।

অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন এর পিতা মরহুম আলহাজ্ব মোঃ তাজিদ হোসেন ও মাতা মরহুমা খায়রুন নেছা আজীবন আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে গেছেন।  জাকির হোসেনের জন্ম ২৭ নভেম্বর ১৯৬৩ ইংরেজিতে। সিলেট নগরীর রায়নগর সেবক এলাকার হোসেন লজের স্থায়ী বাসিন্দা তিনি। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত। দু’পুত্র সন্তানের জনক।

ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিষয়ে তিনি মাষ্টার্স সমাপনী শেষে সিলেট শহরতলীতে অবস্থিত শাহ খুররম ডিগ্রি কলেজে অধ্যাপনা পেশার মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি সকলে দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© ২০১৭ - সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - সিলনিউজ২৪.কম
ডিজাইন ও ডেভেলপে Host R Web