Saturday, 17 August, 2019

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ছাড়লেন বাংলাদেশের সম্ভাব্য কোচ মাইক হেসন


সিলনিউজ অনলাইনঃ বাংলাদেশের সম্ভাব্য কোচ হওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছেন মাইক হেসন। আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। কিন্তু কোনো কারণ না জানিয়েই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের দল পাঞ্জাবের দায়িত্ব ছাড়লেন মাইক হেসন।

বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে পাঞ্জাবের দায়িত্ব ছাড়ার ঘোষণা দেন নিউজিল্যন্ডের এই সাবেক কোচ।

হেসনের সঙ্গে দুই বছরের চুক্তি ছিল পাঞ্জাবের। কিন্তু চুক্তির মাঝপথেই দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেন তিনি। অবশ্য এর পেছনে যথেষ্ট কারণও রয়েছে। কেননা এরই মধ্যে বেশ কয়েকটি জাতীয় দল থেকে প্রধান কোচ হওয়ার প্রস্তাব পেয়েছেন হেসন। যার মধ্যে আছে ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকা। জানা যায়, বাংলাদেশেরও প্রথম পছন্দ হেসন।
ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজের আগেই কোচ নিয়োগ দিতে চায় বিসিবি। হাতে রয়েছে এক মাসেরও কম সময়।

বোর্ডের সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা পাঁচজন কোচ হলেন— নিউজিল্যান্ডের মাইক হেসন, জিম্বাবুয়ের গ্রান্ট ফ্লাওয়ার, ইংল্যান্ডের পল ফারব্রেস, দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ডমিঙ্গো ও শ্রীলঙ্কার চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।

অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারকে বাংলাদেশের কোচ হওয়ার প্রস্তাব দিলেও দ্বিতীয়বারের মতো তিনি সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন। বিশ্বকাপের পর ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান তাদের প্রধান কোচ খুঁজছে। কোচ পেতে হলে তাদের সঙ্গে অবশ্যই প্রতিযোগিতায় নামতে হবে বিসিবিকে।

গত বছরের মার্চে বিসিবির প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়া ইংল্যান্ডের সাবেক সহকারী কোচ ফারব্রেসকে নিয়েও ভাবছে বিসিবি। ওই সময়ে ফারব্রেস প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলে রোডসকে কোচ করে আনে বাংলাদেশ।

ইএসপিএনক্রিকইনফো জানায়, নিউজিল্যান্ডের সাবেক কোচ হেসন টাইগারদের কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন। বিসিবি নাকি তাঁর ব্যাপারে আগ্রহী। পাকিস্তানের ব্যাটিং কোচ গ্রান্ট ফ্লাওয়ারও বোর্ডের আগ্রহের তালিকায় রয়েছে।

হাথুরুসিংহে ২০১৪ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের হেড কোচের দায়িত্ব পালন করেন। তাঁর প্রতিও বিসিবি আগ্রহী।
এদিকে কোচ পদে দেওয়া ডমিঙ্গোর সাক্ষাৎকারে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে বিসিবি।

খবরঃ এনটিভি